শরীয়তপুরে ভেজাল নারিকেল তেলের কারখানা সন্ধান, ৪ জন আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক
শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া খাদ্য গুদাম সংলগ্ন ইলিয়াস হাওলাদারের বাড়িতে সয়াবিন তেলের সাথে কেমিক্যাল মিশিয়ে প্যারাসুট নারিকেল তেল তৈরীর নকল কারখানার সন্ধান পেয়েছে আংগারিয়ার ফাঁরির পুলিশ। নকল তেল বিক্রি করার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।
এ সময় ওই কারখানা থেকে দুইটি ড্রামে সয়াবিন তেল, কেমিক্যাল মিশ্রিত ১শ কেজি নারিকেল তেল এবং এক হাজার ২শ নকল প্যারাসুট তেলের বোতল জব্দ করা হয়েছে।
২২ আগষ্ট বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে ওই ভেজাল নারিকেল তেল তৈরীর কারখানায় অভিযান চালানো হয়।

আটককৃতরা হলেন, সদর উপজেলার দেওভোগ গ্রামের বাবুল দাসের ছেলে সুজন দাস (২৫), কাশিপুর গ্রামের ইলিয়াস হাওলাদারের ছেলে বাবুল হাওলাদার (২৫), ধানুকা গ্রামের আলী আহম্মদ মাঝির ছেলে মিলন মাঝি (২৫) এবং আটং গ্রামের মৃত মদন বৌদ্ধর ছেলে সজীব বৌদ্ধ (২০)।
আটককৃতদের সাথে আলাপ কালে জানা যায়, তারা সয়াবিন তেলের সাথে সামান্য পরিমান নারিকেল তেল এবং কেমিক্যাল মিশিয়ে ভেজাল নারিকেল তেল তৈরী করতেন এবং বাজারের নামীদামি কোম্পানির স্টিকার বোতলের গায়ে লাগিয়ে বাজারজাত করতেন।
এ ব্যাপারে আংগারিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মিন্টু মন্ডল বলেন, দুপুরে আংগারিয়া খাদ্য গুদাম সংলগ্ন ইলিয়াস হাওলাদারের বাড়িতে ভেজাল নারিকেল তেল তৈরির কারখানায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় ভেজাল তেল, প্যারাসুট তেলের খালি বোতল, কলম্বো স্টিকার জব্দ করা হয়। আটক চারজনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হবে বলে তিনি জানান।