গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১১ জন চিকিৎসকের ৮ জনই অনুপস্থিত

 

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ
শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১১ জন চিকিৎসকের মধ্যে ৮ জনই অনুপস্থিত স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরা।
৫০ শয্যা গোসাইরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পর্যাপ্ত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও চিকিৎসা কর্মকর্তা খাতা-কলমে থাকলেও কর্মস্থলে তাদের উপস্থিতি নেই।

রবিবার ১১ অক্টোবর সরেজমিন গিয়ে হাসপাতালের ১১ জন চিকিৎসকের মধ্যে কর্মক্ষেত্রে পাওয়া যায় মাত্র ৩ জনকে।
দায়িত্ব পালনে চিকিৎসকদের গাফিলতি আর জনবল সঙ্কটে গোসাইরহাটের প্রায় ২ লাখ মানুষ বঞ্চিত হচ্ছেন সরকারি স্বাস্থ্যসেবা থেকে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ হাফিজুর রহমান, মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ ইসমাইল হোসেন সরকার ও ডাঃ আব্দুল্লাহ মুহাম্মদ তাহের হাসপাতালে উপস্থিত রয়েছেন। বাকি ৮ জন
চিকিৎসকই কর্মস্থলে উপস্থিত নেই। এর মধ্যে একজন চিকিৎসক ছুটিতে রয়েছে।
সরকারি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রটিতে সব চিকিৎসকই তাদের ইচ্ছেমতো আসেন আর যান।
হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা আজাহার চৌকিদার, সাহিদা বেগম, মনোয়ারা বেগম, বিউটি বেগম ও পারভিন আক্তার বলেন, সকাল ৯ টায় টিকেট কেটে চিকিৎসকের দরজায় এসে দাড়িয়ে আছি। এখন বেলা সাড়ে ১১টা বাজে এখনো কোনো চিকিৎসক আসেনি।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. হাফিজুর রহমান জানান, সকল চিকিৎসকরা উপস্থিত নেই। এর মধ্যে কেউ ছুটিতে রয়েছে। ডাঃ তানিয়া নাইট করেছেন। সকল চিকিৎসকরাই উপস্থিত থাকেন। তবে মাঝে মধ্যে কেউ অসুস্থ থাকার কারনে আসতে পারেন না।